HomeFacebook tricksUncategorizedফেসবুক আমাদের ঘুমের জন্য বিশাল হুমকিস্বরুপ! দেখুন কি কি ক্ষতি করে আমাদের
227 Views No Comment
সকল আপডেট ফেসবুকে পেতে আমাদের অফিশিয়াল ফ্যান পেজে লাইক দিন

ফেসবুক আমাদের ঘুমের জন্য বিশাল হুমকিস্বরুপ! দেখুন কি কি ক্ষতি করে আমাদের

কি অবস্থা! হাতের স্মার্টফোনের দিকে একনাগাড়ে তাকিয়ে থাকতে থাকতে ঠিকই ঘুম পাচ্ছে আপনার! কিন্তু ঘুমাতে যাচ্ছেন না! কারণ তখনও ফেসবুকে নোটিফিকেশন আসছে! বহুবার এমন হয়েছে, তাই না? ইচ্ছেমত মাউস স্ক্রল করেই যাচ্ছেন পিসিতে! ফেসবুক নিউজফিডে নতুন নতুন খবর আসছে, আর আপনি দেখছেন! চোখে তখন রাজ্যের ঘুম! অথচ ঘুমানোর প্রতি মন নেই। সব মন ফেসবুকে! লজ্জা পাবার কিছু নেই! আপনার মত এরকম অসংখ্য ফেসবুক ইউজারের জীবনের এটা একটা পরিচিত সমস্যা! কিন্তু জানেন কি, এই ঘুমের সমস্যা আপনার মৃত্যুর ঝুঁকি বাড়িয়ে দিচ্ছে? পরিসংখ্যানে দেখা গেছে, ফেসবুক ব্যবহারকারীরা দিনে কমপক্ষে ৬১ মিনিট ফেসবুকে থাকছে এবং প্রত্যেক সপ্তাহে সর্বনিম্ন ৩০ বারের মত লগইন লগআউট করছে। ‘Waterbury’র রিসার্চে ১৭০০ অংশগ্রহণকারীদের ৩০ শতাংশই ‘Sleeping Disturbance’এ আক্রান্ত। এই অংশগ্রহণকারীদের বয়স ছিল ১৭ থেকে ৩২ বছর পর্যন্ত।
পোস্ট ডক্টরেট রিসার্চার জেসিকা সি লেভিনসনের মতে, “এই রিসার্চ থেকে জানতে পারি সোশ্যাল মিডিয়া মানুষের ঘুমকে নষ্ট করে দিচ্ছে। তবে এও বুঝতে পারি, মানুষ যত বেশি বাইরের কাজে নিয়োজিত
হবে এবং ফোন সাইলেন্ট মোডে রাখবে, তত তার ঘুমের সমস্যা দিনে দিনে সেরে যাবে”।
মাত্র যারা ফেসবুকে বেশি বেশি সময় দেওয়া শুরু করেছেন, তাদের ৫০ শতাংশের মারাত্মক ঘুমের সমস্যা হতে পারে বলে ধারণা করছেন রিসার্চাররা।
কীভাবে ফেসবুক ঘুমের ক্ষতি করে?
ফেসবুক এবং ঘুম, “মূলত একটা দুষ্টু চক্র” । এ রকমই মনে করছেন রিসার্চাররা। রাতে ঘুমানোর সময়ে ফেসবুক ব্যবহার করার পেছনে এই চক্রই দায়ী। যেসব লোকের রাতে ঘুম আসে না কিংবা ঘুমের সমস্যায় ভুগছে তারাই মূলত রাতে ফেসবুক ব্যবহারের প্রতি মনযোগী হন । আর ওদিকে ঘুমের সময়টা বেশি বেশি ফেসবুকে কাটালে ঘুমের ব্যাঘাত ঘটে।
অনেকেই ফেসবুককে “স্লিপিং পিল” হিসেবে নিয়ে ফেসবুকের প্রতি নেশাগ্রস্ত হয়ে পড়ে। যেটা আসলেই একটা মানুষের জন্য ভীষণ ক্ষতিকারক।
রাতে ফেসবুক বাদ, চলুন ভালো করে ঘুমিয়ে নেই
আচ্ছা! একটা রিসার্চ করা হলো! আপনি জানলেন ফেসবুক আপনার ঘুম কেড়ে নিচ্ছে? তাতে কি হবে? আপনি কি ফেসবুক বাদ দিয়ে ঘুমাবেন? এরকম হলে ব্যাপারটা ভালোই হত! আসলে রিসার্চ আপনাকে ভালো ঘুম এনে দিতে পারবে না! তাই দরকার নিজের ইচ্ছাশক্তি। ধুমিয়ে খেলাধুলা শুরু করে দিন, জিম করুন, কঠোর ব্যায়াম করুন। দিনের বেশিরভাগ সময়ই কাজে ব্যয় করুন। তখন আপনাআপনি দেখবেন রাতের বেলায় আপনার শরীর আর ব্রেইন বিশ্রাম চাচ্ছে। ফেসবুকের কাছে গিয়ে ঘুম চাইতে হচ্ছে না। চোখে এমনিতেই ঘুম চলে আসবে! ফেসবুক কি আপনার জীবন? কি ভাবছেন, মারা যাবেন!! নিজের স্মার্টফোন থেকে মাত্র দুই থেকে তিনদিনের জন্য হলেও ফেসবুক আনস্টল করে ফেলুন! দেখুন মারা যাবেন না!! আর বুঝবেন, জীবনের থেকে ফেসবুক বড় নয়। এই বোধোদয় এলেই দেখবেন, বাপ বাপ করে ফেসবুকের নেশা পালাচ্ছে ।
রিসার্চ জানাচ্ছে, তরুণদের ক্ষেত্রেই এই ঘুমের সমস্যা দেখা যাচ্ছে। রাতভর ফেসবুক, ঘুম নেই! ব্যাঘাত ঘটছে শিক্ষা আর চাকরি জীবনে। ড: প্রিম্যাকের মতে, “ফেসবুকের ঐ একঘেয়ে স্ক্রিন আমাদের ব্রেইনের স্বাভাবিক চলাচল দমিয়ে দিচ্ছে, তাই ঘুমের সমস্যা হচ্ছে”।
ফেসবুকে দিনে এক ঘণ্টার বেশি একদম না! দরকার কি, ঐ একঘেয়ে নীল স্ক্রিনে ডুবে নিজের জীবনীশক্তি খুয়ে ফেলবার! ভার্চুয়াল থেকে রিয়াল লাইফে আসুন! বাস্তব জীবনের সৌন্দর্য ও বিচিত্রতা উপভোগ করুন।
আলব্যানি ডেইলি স্টার অবলম্বনে

Tags:

1 year ago (October 3, 2016) FavoriteLoadingAdd to favorites

About Author (185) 228 Views

author

This user may not interusted to share anything with others

Leave a Reply

You must be Logged in to post comment.

Related Posts


All Rights Reserved
© 2010 - 2017 Trick-Bd.CoM