HomeTechnologies updateওয়াই-ফাই রাউটারের গতি বৃদ্ধির পাঁচ উপায়.
68 Views No Comment
সকল আপডেট ফেসবুকে পেতে আমাদের অফিশিয়াল ফ্যান পেজে লাইক দিন

ওয়াই-ফাই রাউটারের গতি বৃদ্ধির পাঁচ উপায়.

১. রাউটার রাখুন ঘরের মাঝখানে-
ইন্টারনেট সংযোগ নেওয়ার সময় আমরা
যে জিনিসটা সবচেয়ে অবহেলা করি তা
হচ্ছে অতিরিক্ত তার নেওয়া। তারের
পরিমাণ কম থাকার কারণে রাউটারের
জায়গা হয় ঘরের এক কোণে বা জানালার
পাশে। ফলে অর্ধেক ওয়াই-ফাই সিগন্যাল
রয়ে যায় বাইরে। এতে করে গতি হ্রাস
পায়। কারণ ওয়াই-ফাই ছড়ায় ওমনি
ডাইরেকশনালি, অর্থাৎ স্পিকার থেকে
আওয়াজ যেভাবে চারদিকে ছড়িয়ে যায়,
ঠিক সেইভাবে রাউটারের
অ্যান্টেনাকে কেন্দ্র করে ওয়াই-ফাই
চারদিকে ছড়িয়ে যায়। তাই রাউটারকে
ঘরের মাঝখানে রাখার চেষ্টা করুন।
২. চোখের উচ্চতায় রাখুন –
শুধু যে ঘরের মাঝখানে রাখলেই
রাউটারের গতি ভালো পাবেন, তা কিন্তু
নয়। উচ্চতারও এখানে যথেষ্ট ভূমিকা
রয়েছে। মাটি থেকে পাঁচ ফুট উচ্চতা,
অর্থাৎ চোখ বরাবর উচ্চতায় রাউটার
রাখলে ভালো গতি পাওয়া যায়।
পাশাপাশি রাউটারের সিগন্যালের পথে
বাধা হয়ে দাঁড়ায় এমন কোনো ডিভাইস,
যেমন—কর্ডলেস ফোনের বেস, অন্য কোনো
রাউটার, প্রিন্টার, মাইক্রোওয়েভের
সঙ্গেও রাউটার রাখা ঠিক নয়।
৩. কম ডিভাইস সংযুক্ত করা –
বাড়িতে বন্ধু বা আত্মীয় আনাগোনা খুব
বেশি? সবাইকে ওয়াই-ফাইয়ের
পাসওয়ার্ড দিয়ে বেড়ান? তাহলে
আপনার ওয়াই-ফাইয়ের গতি কমতে বাধ্য।
যদি দ্রুতগতির ইন্টারনেট সংযোগ না হয়,
তাহলে একসঙ্গে অনেক বেশি ডিভাইস
সংযোগ না দেওয়াই ভালো। এখন অনেক
রাউটারে ডিভাইস ব্লক করার সুযোগ
থাকে। যদি দেখা যায়, কোনো নির্দিষ্ট
ডিভাইস অতিরিক্ত ব্যান্ডউইথ টেনে
নিচ্ছে, তাহলে তাকে ব্লক করে দিন। এ
ছাড়া ফ্রি ওয়াই-ফাই পেলে অনেকেরই
ডাউনলোড করার শখ মাথাচাড়া দিয়ে
ওঠে। এতে করেও রাউটারের গতি কমে
যায়।
৪. রিপিটার ব্যবহার করা –
ওয়াই-ফাইয়ের গতি বাড়িয়ে দিতে
রিপিটারের জুড়ি নেই। বাজারে বা
অনলাইন শপে প্রচুর রিপিটার পাওয়া
যায়। রাউটারের সঙ্গে সংযুক্ত করে
নেওয়াও সহজ। অনেক সময় বাড়িতে
পুরোনো রাউটার থাকলে যথেষ্ট গতি
পাওয়া যায় না। রাউটার এ সমস্যা থেকে প্রশ্নঃ রিপিটার কি?
উত্তরঃ রিপিটার হলো এমন একটি
ডিভাইস যা সিগন্যালকে এমপ্লিফাই
করার জন্য ব্যবহার করা হয়। ১৮৫ মিটার
দূরত্ব অতিক্রম করার আগেই আপনি একটি
রিপিটার ব্যবহার করে সেই সিগন্যালকে
এমপ্লিফাই করে দিলে সেটি আরো ১৮৫
মিটার অতিক্রম করতে পারে। এটি কাজ
করে ওএসআই মডেল এর ফিজিক্যাল
লেয়ারে।
300MBPS এর রিপিটার ১৩০০/= এর মতো
পরবে। যেখানে রাউটার পাওয়া যায়
সেখানেই রিপিটার পেয়ে যাবেন।
৫. ইউএসবি রাউটার ব্যবহার করুন –
রাউটার কেনার আগে দেখে নিন, তাতে
ইউএসবি পোর্ট আছে কি না। কারণ,
ইউএসবি পোর্ট থাকলে তাতে
এক্সটার্নাল হার্ডড্রাইভ সংযোগ করা
সহজ হয়। অথবা প্রিন্টারও সংযুক্ত করতে
পারেন। এতে করে ইন্টারনেট থেকে
কোনো জিনিস প্রিন্ট দেওয়ার জন্য
ডিভাইসের প্রয়োজন পড়বে না। ইউএসবি
পোর্টসমৃদ্ধ রাউটারগুলো বেশ
শক্তিশালী হয়। ফলে সিগন্যালও পাওয়া
যায় ভালো।
সহজেই মুক্তি দেবে আপনাকে। প্রশ্নঃ রিপিটার কি?
উত্তরঃ রিপিটার হলো এমন একটি
ডিভাইস যা সিগন্যালকে এমপ্লিফাই
করার জন্য ব্যবহার করা হয়। ১৮৫ মিটার
দূরত্ব অতিক্রম করার আগেই আপনি একটি
রিপিটার ব্যবহার করে সেই সিগন্যালকে
এমপ্লিফাই করে দিলে সেটি আরো ১৮৫
মিটার অতিক্রম করতে পারে। এটি কাজ
করে ওএসআই মডেল এর ফিজিক্যাল
লেয়ারে।
300MBPS এর রিপিটার ১৩০০/= এর মতো
পরবে। যেখানে রাউটার পাওয়া যায়
সেখানেই রিপিটার পেয়ে যাবেন।
৫. ইউএসবি রাউটার ব্যবহার করুন –
রাউটার কেনার আগে দেখে নিন, তাতে
ইউএসবি পোর্ট আছে কি না। কারণ,
ইউএসবি পোর্ট থাকলে তাতে
এক্সটার্নাল হার্ডড্রাইভ সংযোগ করা
সহজ হয়। অথবা প্রিন্টারও সংযুক্ত করতে
পারেন। এতে করে ইন্টারনেট থেকে
কোনো জিনিস প্রিন্ট দেওয়ার জন্য
ডিভাইসের প্রয়োজন পড়বে না। ইউএসবি
পোর্টসমৃদ্ধ রাউটারগুলো বেশ
শক্তিশালী হয়। ফলে সিগন্যালও পাওয়া
যায় ভালো।

3 weeks ago (October 30, 2017) FavoriteLoadingAdd to favorites

About Author (5) 69 Views

administrator

Technology lover

Leave a Reply

You must be Logged in to post comment.

Related Posts


All Rights Reserved
© 2010 - 2017 Trick-Bd.CoM