Homeinternational newsএস-৪০০ ক্ষেপণাস্ত্র কেনার অর্থ পরিশোধ তুরস্কের
105 Views No Comment
সকল আপডেট ফেসবুকে পেতে আমাদের অফিশিয়াল ফ্যান পেজে লাইক দিন

এস-৪০০ ক্ষেপণাস্ত্র কেনার অর্থ পরিশোধ তুরস্কের

রাশিয়ার কাছ থেকে অত্যাধুনিক এস-৪০০
ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা কেনার
যে চুক্তি করা হয়েছে তার আওতায়
মস্কোকে একটি অর্থ পরিশোধ করা হয়েছে
বলে তুরস্ক জানিয়েছে। তুর্কি প্রেসিডেন্ট
রজব তাইয়্যেব এরদোগানের বরাত দিয়ে
দেশটির হুরিয়াত পত্রিকা এ খবর দিয়েছে।
প্রেসিডেন্ট এরদোগান বলেন, “এস-৪০০
ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা কেনার
যে চুক্তি হয়েছে তাতে আমাদের বন্ধুরা
এরইমধ্যে সই করেছেন। আমার জানা মতে,
চুক্তির অর্থ মূল্যের একটি অংশ পরিশোধ
করা হয়েছে।” এছাড়া ক্ষেপণাস্ত্র ব্যবস্থা
সরবরাহের ইস্যুতে রুশ প্রেসিডেন্ট
ভ্লাদিমির পুতিন এবং তিনি
দৃঢ়প্রতিজ্ঞাবদ্ধ বলেও জানান এরদোগান।
রাশিয়ার কাছ থেকে দুটি অত্যাধুনিক
এস-৪০০ ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা
কেনার কথা ব্লুমবার্গ গত জুলাইয়ে
জানিয়েছিল। তবে সেসময় রাশিয়া কিংবা
তুরস্কের কোনো পক্ষ থেকেই
আনুষ্ঠানিকভাবে ঘোষণা দেয়া হয় নি।
ব্লুমবার্গ আরো বলেছিল, রাশিয়া ২০১৮
সালের মধ্যে তুরস্কে এস-৪০০ ক্ষেপণাস্ত্র
প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা পাঠাবে। এছাড়া,
চুক্তির আওতায় স্থানীয়ভাবে আরো দুটি
ক্ষেপণাস্ত্র ব্যবস্থা তৈরিতে তুরস্ককে
সহযোগিতা দেবে রাশিয়া এবং তুর্কি
সরকার এর জন্য ২৫০ কোটি ডলার ব্যয় করবে।
এ খবর সত্য হলে তা হবে মার্কিন
নেতৃত্বাধীন ন্যাটো সামরিক জোটের জন্য
চরম চপেটাঘাত। কারণ তুরস্ক হচ্ছে ন্যাটোর
একমাত্র মুসলিম সদস্য দেশ কিন্তু অস্ত্র
কিনছে রাশিয়া থেকে। ন্যাটো সবসময়
রাশিয়াকে প্রধান শত্রুদেশ হিসেবে
বিবেচনা করে থাকে। এছাড়া, তুরস্ক যাতে
রাশিয়ার সঙ্গে ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক তৈরি না
করে সেজন্য আমেরিকা ও তার মিত্ররা
বহুদিন থেকে চেষ্টা চালাচ্ছে।#
তুরস্কে অস্ত্র সরবরাহ বন্ধ করে
দিয়েছে জার্মানি
তুরস্কে সব ধরনের গুরুত্বপূর্ণ অস্ত্র সরবরাহ
বন্ধ করে দিয়েছে জার্মানি। দেশটির
অবনতিশীল মানবাধিকার পরিস্থিতি এবং
ন্যাটো মিত্র দেশ দুটির মধ্যে
টানাপড়েনকে কেন্দ্র এ পদক্ষেপ নিয়েছে
বার্লিন।
জার্মান ভাইস চ্যান্সেলর এবং
পররাষ্ট্রমন্ত্রী সিগমার গ্যাব্রিয়েল
বলেছেন, বড় বড় অস্ত্রের জন্য তুরস্ক যে
আহ্বান জানিয়েছিল তা সরবরাহ করার
বিষয়টি স্থগিত রাখা হয়েছে। এগুলোর
সংখ্যা কম নয় বলেও জানান তিনি। কথিত
রাজনৈতিক অভিযাগে আরো এক জার্মান
দম্পতিকে তুরস্কে আটক করা হয়েছে বলে
পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে
জানানোর পর অস্ত্র সরবরাহ বন্ধের
পদক্ষেপ নেয়া হয়।
তিনি বলেন, ন্যাটো অংশীদার হিসেবে
বার্লিন সাধারণভাবে অস্ত্র পাঠানোর
অনুরোধ মেনে নেয়। কিন্তু তুরস্কে
বিরাজমান পরিস্থিতির কারণে এ ধরণের
অনুরোধ স্থগিত রাখা হয়েছে।

2 months ago (September 12, 2017) FavoriteLoadingAdd to favorites

About Author (18) 106 Views

administrator

This user may not interusted to share anything with others

Leave a Reply

You must be Logged in to post comment.

Related Posts


All Rights Reserved
© 2010 - 2017 Trick-Bd.CoM